কিশোরগঞ্জ সদরে মাদ্রাসা ছাত্রী ধর্ষিত

0
143

সর্বশেষ আপডেট জুলাই ২৮, ২০২১ | ইমরান

স্টাফ রিপোর্টার:

কিশোরগঞ্জ জেলা সদরের মারিয়া ইউনিয়নের চরমারিয়া গ্রামে মাদ্রাসা পড়ুয়া ছাত্রী মনিরা আক্তার (১৭) কে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে।

ধর্ষিতার পরিবারের অভিযোগ সূত্রে ও সরেজমিন জানা যায়, গত ২৬ জুলাই রাত ৮টার দিকে সদর উপজেলার ৮নং মারিয়া ইউনিয়নের চরমারিয়া গ্রামের দুলাল মিয়ার মাদ্রাসা পড়ুয়া ছাত্রী মনিরা আক্তার পার্শ্ববর্তী মামার বাড়িতে যাওয়ার পথে একই গ্রামের মৃত রফিকুল ইসলামের পুত্র মোহাইমিন অন্ধকারে মনিরা আক্তারের মুখ চেপে ধরে জোরপূর্বক পাশের জঙ্গলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে। ধর্ষিতা মনিরা আক্তার বিধ্বস্থ অবস্থায় বাড়িতে ফিরে এলে পরিবারের লোকজন ধর্ষণের ব্যাপারটি জানতে পারে। এর পরপরই এলাকার লোকজনসহ মোহাইমিনের পরিবারের লোকজনকে নিয়ে ধর্ষনের ঘটনাটি খতিয়ে দেখতে শালিশ দরবারে বসেন। মোহাইমিনের পরিবারের লোকজনের অসহযোগিতায় ঘটনাটির সুরাহা করতে না পেরে ২৭ জুলাই কিশোরগঞ্জ মডেল থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।

২৭ জুলাই সরেজমিনে গিয়ে জানাযায়, মোহাইমিনের পরিবারের সদস্যরা ধর্ষিতা মনিরা আক্তারকে মিথ্যা অপবাদে মারধর করে। মারধরের খবর পেয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্য বাদল মিয়াসহ এলাকার লোকজন মনিরা আক্তারকে উদ্ধার করে কিশোরগঞ্জ আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ধর্ষিতার ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে বলে জানাযায়।

অন্যদিকে অভিযুক্ত মোহাইমিন ২৭ জুলাই অন্য এক মেয়েকে (প্রেমিকা) নিয়ে পালিয়ে যায় বলে জানা যায়। এ ছাড়াও এলাকার লোকজন জানায় অভিযুক্ত মোহাইমিনের বিরুদ্ধে এ ঘটনার পূর্বেও বাড়ির আশপাশের মেয়ে ও মহিলাদের উত্তক্ত করার অভিযোগ রয়েছে।

পূর্ববর্তী সংবাদসাবেক অর্থমন্ত্রী মুহিত করোনায় আক্রান্ত
পরবর্তী সংবাদভৈরবে পাওনা টাকা কে কেন্দ্র করে যুবককে হত্যা ॥ আটক ১

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন!
এখানে আপনার নাম লিখুন