শিমুলিয়া ঘাটে যাত্রীদের উপচে পড়া ভিড়

0
7

সর্বশেষ আপডেট জুলাই ১৮, ২০২১ | ইমরান

ঈদের আর মাত্র বাকি তিনদিন। সর্বাত্বক লকডাউন শিথিলের চতুর্থ দিনে শিমুলিয়া ঘাটে ঈদ যাত্রীদের উপচে পড়া ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। দক্ষিণবঙ্গের ২১ জেলার মানুষের উপস্থিতিতে রোববার ঘাট এলাকাটি ছিলো ঈদযাত্রীদের জটলা আর এসব জটলায় ছিলো না স্বাস্থ্যবিধি মানার প্রবণতা।

আজ রোববার (১৮ জুলাই) সকাল থেকে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ছোট-বড় যানবাহনে চড়ে যাত্রীরা ঘাটে উপস্থিত হয়ে ফেরি ও লঞ্চ দিয়ে পদ্মা পারি দিচ্ছে। স্পিডবোট চলাচল বন্ধ আছে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ফেরিঘাটে যানবাহন বাড়তে থাকে আর লঞ্চ ঘাটে যাত্রীদের ভিড়ও বাড়তে থাকে।

তবে ঘাট কর্তৃপক্ষ বলছে, এখন পর্যন্ত স্বাস্থ্যবিধি মেনে যাত্রীদের পদ্মা নদী পার করা হচ্ছে। ঘাটে গাড়ি প্রবেশ সীমিত করা হয়েছে। ফেরিতে কিছু গাড়ি ঘাট ছেড়ে যাওয়ায় সড়কের যানগুলো ঘাটে প্রবেশ করানো হচ্ছে।

এ বিষয়ে বিআইডব্লিউটিসির শিমুলিয়া ঘাটের উপ-মহাব্যবস্থাপক শফিকুল ইসলাম জানান, নৌ-রুটে বর্তমানে ১৩টি ফেরি সচল রয়েছে। ঘাট এলাকায় পারাপারের জন্য যাত্রী ও পণ্যবাহী মিলিয়ে ৩ শতাধিক যানবাহন রয়েছে। পর্যায়ক্রমে সকল যানবাহন পারাপার করা হবে।

এদিকে পদ্মায় তীব্র স্রোতে একদিকে ফেরি চলাচল সময় লাগছে বেশি। অন্যদিকে ঈদকে কেন্দ্র করে শিমুলিয়া ঘাটে ব্যক্তিগত গাড়ির চাপ বেড়েছে এর মধ্যে বাইকের সংখ্যা অন্যদিনের চেয়েও দ্বীগুণ। এসব বাইক যাত্রী নিয়ে ফেরিতে উঠেছে। ঘাটের অভিমুখে ঢাকা মাওয়া এক্সপ্রেসওয়েতে পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে অর্ধশত পণ্যবাহী ট্রাক।

ঘাটে অবস্থান করা পণ্যবাহী ট্রাক চালক আলামিন বলেন, ঘাটে ছোট গাড়ি পার করছে আমাদের অপেক্ষায় থাকতে হচ্ছে আমাদের সিরিয়াল ধরতে হচ্ছে।

হসাঁড়া হাইওয়ে পুলিশ বলছে, পচনশীল খাবার আছে এমন ট্রাকগুলো ফেরিতে উঠানো বেলায় অগ্রাধিকার দেওয়া হচ্ছে।

ঘাট সূত্রে জানা যায়, স্রোতের বিপরীতে ৩টি ফেরি চলাচল করতে না পারায় এগুলো চলাচল আপাতত বন্ধ রেখেছে বিআইডব্লিউটিসি কর্তৃপক্ষ। বেশিরভাগ যাত্রী পারাপার করছে লঞ্চ দিয়ে। ৮৪টি লঞ্চ এ নৌরুটে চলছে। এছাড়া ঘাটে লঞ্চ নোঙ্গর করার সঙ্গে সঙ্গে যাত্রীরা হুমড়ি খেয়ে উঠছে আর যাত্রীদের ঢলে উধাও স্বাস্থ্য বিধি।

পূর্ববর্তী সংবাদসিরিজ জিততে ২৪১ দরকার টাইগারদের
পরবর্তী সংবাদবায়তুল মোকাররমে ঈদের ৫ জামাত

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন!
এখানে আপনার নাম লিখুন